সংসদে তোপের মুখে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আজ সকালে জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের সদস্যদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন  স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সরকারি হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটের কারণে গতকাল  সাতক্ষীরা ও বগুড়ায় বেশ কয়েকজন করোনা রোগী  মারা যাওয়ার ঘটনায় পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে মন্ত্রী ও মন্ত্রণালয়ের সমালোচনা করেন বিরোধী  সদস্যরা। একজন সদস্য  মন্ত্রীকে নির্লজ্জ  উল্লেখ করে তাঁর পদত্যাগ দাবি করেন।

আজ  জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনের সমাপনী দিনে এ সময় সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদে উপস্থিত ছিলেন। তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অধিবেশন-কক্ষে দেখা যায়নি।

অক্সিজেন সংকটের বিষয়  নিয়ে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে প্রথম কথা বলেন  বগুড়ার বিএনপি দলীয়  সদস্য  জি এম সিরাজ। তিনি বলেন, অক্সিজেনের অভাবে বগুড়ায় ২ দিনে ২৪ জন মারা গেছেন। কোভিডের জন্য নির্ধারিত মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল ২৫০ বেডের মধ্যে আইসিইউ বেড আছে আটটি। কিন্তু হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা আছে মাত্র দুটি।

ফলে বাকি আইসিইউ বেড কোনো কাজেই লাগছে না। তিনি জানান, বগুড়ায় ৩টি হাসপাতালের ৪৫০টি বেড রোগীতে ঠাসা। নতুন রোগী ভর্তি হতে পারছেন না।  প্রতিটি হাসপাতালে ২০টি হাই ফ্লো অক্সিজেন সরবরাহের দাবি জানান তিনি।

বিরোধী দলের উপনেতা জাতীয় পার্টির জি এম কাদের দাঁড়িয়ে শুরুতেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অব্যবস্থাপনার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বছর আগে যে অবস্থায় ছিল, এখনো সেখানেই আছে। কোনো উন্নতি হয়নি।

তিনি তাঁর নিজ এলাকার হাসপাতালের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্য যেসব চিঠি দিয়েছেন, সংসদে বক্তব্য দিয়েছেন, সেগুলো পুনরুল্লেখ করেন। তবে এগুলোর বাস্তবায়ন হয়নি বলে জানান।

জি এম কাদের বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে তিনি ছয়-সাতবার ফোন দিলেও ধরেননি। মন্ত্রীর সহকারীদের ফোন করে মন্ত্রীকে জানানোর কথা বলি। কিন্তু মন্ত্রী ফোন করেন না। 
 

পাঠকের মন্তব্য