ইরাকে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন, মৃত ২৩

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে অন্তত ২৩ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাতের বেলা ইবনে খাতিব হাসপাতালের ওই অগ্নিকাণ্ডে আহত হয়েছে আরও অনেকে।

অক্সিজেন ট্যাংক বিস্ফোরিত হয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, দমকলকর্মীরা আগুন নেভাতে হিমশিম খাচ্ছেন। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন অনেকে।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মু্স্তাফা আল খাদিমি এই ঘটনাকে ‘মর্মান্তিক দুর্ঘটনা’ বলে উল্লেখ করেছেন। অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানতে তিনি তদন্ত শুরুর নির্দেশ দিয়েছেন।

বেসামরিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল খাদিম বোহান রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, হাসপাতালটির নিবিড় পরিচর্যা ইউনিট (আইসিইউ)-তে আগুনের সূত্রপাত হয়। ফুসফুসের চিকিৎসার জন্যই ওই আইসিইউ-টি ব্যবহার করা হতো।

বার্তা সংস্থা এএফপি-কে হাসপাতালের একটি সূত্র জানিয়েছে, আইসিইউ-তে প্রায় ৩০ জন রোগী ছিলেন। কোভিড-১৯-এ গুরুতর আক্রান্তদের জন্য ওই ইউনিটটি সংরক্ষিত ছিল।

আহত এবং অন্য রোগী যারা আহত হননি তাদেরকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালগুলোতে স্থানান্তর করা হয়েছে। বেসামরিক প্রতিরক্ষা দফতর জানিয়েছে, রবিবার ভোর নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

বাগদাদের গভর্নর মোহাম্মেদ জাবেরও প্রধানমন্ত্রীর মতো একই সুরে কথা বলেছেন। এ ঘটনায় কাউকে আইনের আওতায় আনার দরকার আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এক বিবৃতিতে সরকারের মানবাধিকার কমিশন এই ঘটনাকে এরইমধ্যে কোভিড-১৯ এ বিপর্যস্ত রোগীদের বিরুদ্ধে অপরাধ হিসেবে উল্লেখ করেছে।

ইরাকের হাসপাতালগুলো এমনিতেই করোনাভাইরাস মহামারির ধকল সামলে উঠতে হিমশিম খাচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে যুদ্ধ, অবহেলা ও দুর্নীতির ফলে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা দুর্বল থাকার কারণে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

গত ফেব্রুয়ারি থেকে দেশটিতে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েই চলেছে এবং চলতি সপ্তাহে এ সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস-এর হিসাব অনুযায়ী, ইরাকে এখন পর্যন্ত ১০ লাখ ২৫ হাজার ২৮৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ হাজার ২১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটিতে গত মাসে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে ছয় লাখ ৫০ হাজার ডোজ টিকা তারা পেয়েছে। এর মধ্যে বেশিরভাগই টিকাদানের বৈশ্বিক কর্মসূচি কোভ্যাক্স থেকে পাওয়া। সূত্র: বিবিসি।

পাঠকের মন্তব্য