৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড দেখলেন মেসি

সাধারণত মাঠ ও মাঠের বাইরে নম্র-ভদ্র খেলোয়াড় ও ব্যক্তিত্ব হিসেবেই অধিক পরিচিত স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। তবে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকবারই তাকে দেখা গেছে মেজাজ হারাতে কিংবা আগের চেয়ে বেশি জোরালো হতে।

এর সব মাত্রা অতিক্রম হয়ে গেল রোববার রাতে স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ম্যাচটি ২-৩ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা, খুইয়েছে মৌসুমের প্রথম শিরোপা। সেই হতাশা থেকেই হয়তো মেসি চড়াও হলেন প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের ওপর, দেখলেন বার্সেলোনা ক্যারিয়ারের প্রথম লাল কার্ড।


নির্ধারিত ১২০ মিনিট শেষে যখন চলছিল অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের খেলা। বিলবাও এগিয়ে ৩-২ গোলে। সমতা ফেরানোর আশায় আক্রমণে ওঠে বার্সেলোনা। মাঝমাঠের একটু সামনে এগিয়ে ডি-বক্সের বেশ বাইরে সতীর্থদের উদ্দেশ্যে পাস বাড়ান বার্সা অধিনায়ক মেসি।

ফিরতি পাসে সেই বল পাওয়ার জন্য এগুতে শুরু করেন তিনি। তখনই হয় নেতিবাচক ঘটনাটি। বিলবাওয়ের হয়ে দ্বিতীয় গোল করা আসিয়ের ভিয়ালিবরের সঙ্গে আলতো ধাক্কা লাগে মেসির। এতেই রেগে আগুন বার্সা অধিনায়ক। সঙ্গে সঙ্গে আসিয়েরের মাথার পেছন দিকে চাটি মেরে দেন তিনি।

ঘটনাটি প্রথমে নজরে আসেনি ম্যাচের মূল রেফারির। কেননা বল তখন ছিল ডি-বক্সে। তবে ভিডিও এসিসট্যান্ট রেফারির চোখ এড়ায়নি। রিপ্লে দেখে মেসিকে সরাসরি দেখানো হয় লাল কার্ড। ফলে বার্সেলোনার হয়ে ৭৫৩তম ম্যাচে নেমে প্রথমবারের মতো লাল কার্ড দেখেন মেসি।

শুধু লাল কার্ড দেখেই পার পেয়ে যাবেন না মেসি। এমন ঘটনার জন্য চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেতে পারেন তিনি। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে স্প্যানিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। চলতি সপ্তাহেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবে স্পেনের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।


উল্লেখ্য, বার্সেলোনার হয়ে এটি প্রথম হলেও, নিজের ক্যারিয়ারে এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো লাল কার্ড দেখলেন মেসি। বাকি দুইটি আর্জেন্টিনার হয়ে। নিজের আন্তর্জাতিক অভিষেক ম্যাচেই প্রথম লাল কার্ড দেখেছিলেন তিনি। আর ২০১৯ সালে কোপা আমেরিকায় তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে দেখেন দুই নম্বর লাল কার্ড।
 

পাঠকের মন্তব্য