বাংলাদেশের জন্য প্রস্তুত লঙ্কান দলপতি

ধোঁয়াশা কাটছে না বাংলাদেশ জাতীয় দলের শ্রীলঙ্কা সফরকে ঘিরে। লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বেধে দেয়া গাইডলাইন, সেই গাইডলাইন মেনে সফরে যাওয়া সম্ভব নয় বলে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেয়া এবং শিথিল করার প্রস্তাব করা, উত্তরে শিথিল না করার ঘোষণা লঙ্কা সরকারের এমনকি সিরিজ স্থগিতের হুশিয়ারি, সব মিলিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারছে না দুই দেশই।

এমন বিপরীতমুখী অবস্থানের কারনে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে সিরিজটির আয়োজন নিয়ে। যদিও এখনও আশা ছাড়ছে না শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। তাদের মতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিষয়গুলো বুঝবে এবং লঙ্কা সফরে আসবে।

একই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ কারিনারাত্নে। পরিকল্পনামাফিক সিরিজটি যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করছেন এই অধিনায়ক।

সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমনটাই জানিয়েছেন কারুনারাত্নে।  

তিনি বলেন, 'কোভিড ভাইরাসের কারণে প্রত্যাশিত সিরিজের অনেকগুলোই স্থগিত করতে হয়েছিল। তবে আমরা আমাদের অনুশীলন চালিয়ে অব্যাহত রেখেছিলাম এবং এখনও সেই গতি বজায় রেখেছি।'

'আমরা যে কোনও সিরিজের জন্য প্রস্তুত। আমি এবং আমার দল প্রস্তুত রয়েছি এবং খেলার আশায় রয়েছি। আশা করছি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে বাংলাদেশ সফরও পরিকল্পনা মতো হবে।'

কিছুদিন আগে একই সুরে কথা বলেছিলেন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) সচিব মোহন ডি সিলভা। তিনি জানিয়েছিলেন,  'বাংলাদেশ তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আসার কথা। আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনা করছি।'

'আমরা তাদের চাহিদাগুলো পাঠিয়েছে। কিন্তু আপনারা জানেন, দেশ হিসেবে আমরা এই মহামারী নিয়ন্ত্রণে রাখতে খুবই সফল হয়েছে। সে জন্য কঠোর স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মানতে হচ্ছে আমাদের।'

এদিকে সম্প্রতি লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলভা বলেছিলেন, 'কোভিড টাস্কফোর্স থেকে আমরা যেই বার্তাই পাই না কেনো, সেটা আমরা বিসিবিকে পাঠাবো।'

'টাস্কফোর্সের নির্দেশিকা যদি তাঁরা মানতে প্রস্তুত না থাকে, তাহলে সিরিজটি আমাদের স্থগিত করতে হবে এবং আগামী বছর বা পরের বছর সিরিজটি আয়োজনের চিন্তা করবো।'

অক্টোবরের ২৪ তারিখ থেকে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অন্তর্ভুক্ত সিরিজটি শুরু হবার কথা রয়েছে। তিন ম্যাচের সিরিজটির প্রস্তুতি হিসেবে ইতোমধ্যেই অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। আশা করা যাচ্ছে দুই এক দিনের ভেতর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে লঙ্কা সফর নিয়ে।

পাঠকের মন্তব্য