জৈব সুরক্ষা বলয় ভাঙছে বিসিবি

গত ২১ সেপ্টেম্বর (সোমবার) ক্রিকেটারদের করোনাসংক্রমণ রোধে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করেছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই বলয়ে আবদ্ধ থেকেই গত কয়েকদিন অনুশীলন করেছেন খেলোয়াড়েরা।

তবে তামিম, মুমিনুলদের সতেজ রাখতে তিন দিনের একটি বিরতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। ফলে জৈব সুরক্ষা বলয়টিও ভাঙতে হচ্ছে তাঁদের। বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী অবশ্য নিশ্চিত করেছেন বিরতি শেষে ক্রিকেটারদের স্বার্থে নতুন আরেকটি বলয় তৈরি করা হবে।


ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে দেবাশীষ জানিয়েছেন ক্রিকেটারদের মানসিক দিক থেকে প্রফুল্ল রাখার উদ্দেশ্যেই বিরতির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। এই বিরতির সময়ে পরিবারকে সময় দিতে পারবেন খেলোয়াড়েররা। 

বিসিবির এই চিকিৎসক বলেন, 'ক্রিকেটারদের মানসিক অবস্থা নিয়ে আমাদের চিন্তা করতে হবে। কারণ তাঁরা জীবনে প্রথমবারের মতো জৈব সুরক্ষিত বলয়ের মধ্যে থাকছে। এটা সত্যি যে বর্তমান সুরক্ষিত বলয়টি ভেঙে গেছে, তবে আমরা যেকোনো সময় নতুন আরেকটি বলয় তৈরি করতে পারি ক্রিকেটারদের হোটেল এবং বাসায় ফেরার বিষয়গুলো বিবেচনা করে।' 

ক্রিকেটারদের পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রেও জোর দিচ্ছে বিসিবি। সেকারণে নতুন করে আবারো পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। দেবাশীষ বলেছেন, 'আমাদের নতুন করে কভিড-১৯ পরীক্ষা করাতে হবে কারণ পূর্বের পরীক্ষাগুলো বিবেচনা করা হবে না লম্বা সময়ের ব্যবধানের কারণে।' 

মূলত শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখেই নানা ধরণের উদ্যোগ হাতে নিয়েছে বিসিবি। ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রচেষ্টার অন্ত রাখছে না বোর্ড। লঙ্কানদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি নিশ্চিত না হলেও নিজেদের প্রস্তুতিতে ঘাটতি রাখতে চায় না দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক এই সংস্থা। 

পাঠকের মন্তব্য