ইরাকে সেনা উপস্থিতি কমানোর ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে ইরাক থেকে এক তৃতীয়াংশের বেশি সেনা প্রত্যাহার করে নেবে যুক্তরাষ্ট্র। মধ্যপ্রাচ্যের শীর্ষ মার্কিন কমান্ডার জেনারেল কেন্নেথ ম্যাকেঞ্জি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ইরাকে সেনা উপস্থিতির সংখ্যা পাঁচ হাজার দুইশ’ থেকে কমিয়ে তিন হাজার করা হবে। 

থেকে যাওয়া সেনা সদস্যরা দেশটি থেকে আইএস-র শেকড় নির্মূলে ইরাকি বাহিনীকে সহায়তা ও পরামর্শ দেওয়া অব্যাহত রাখবে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
 
গত জানুয়ারিতে বাগদাদ বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহতের পর ইরাক জুড়ে শুরু হয় তীব্র বিক্ষোভ। বিক্ষোভকারীদের অন্যতম দাবি ছিলো ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার। গত মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশটি থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দেন।


বুধবার বাগদাদ সফরের সময় মধ্যপ্রাচ্যের শীর্ষ মার্কিন কমান্ডার জেনারেল কেন্নেথ ম্যাকেঞ্জি বলেন, আইএস’র হুমকি মোকাবিলায় ইরাকি বাহিনী তাদের সক্ষমতা বাড়াতে পেরেছে বলে আত্মবিশ্বাসী যুক্তরাষ্ট্রের সেনা সদস্যরা। 

ইরাকি বাহিনীর সেই সক্ষমতাকে স্বীকৃতি দিয়েই দেশটি থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। জেনারেল ম্যাকেঞ্জি বলেন, সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হলেও ইরাকি বাহিনীকে পরামর্শ ও সহায়তা দিয়ে দেশটি থেকে আইএসকে চূড়ান্তভাবে নির্মূল করার কাজ এগিয়ে নেওয়া হবে।
 

পাঠকের মন্তব্য