একদিনেই ৯ শতাধিক মৃত্যু ব্রাজিলে

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে ভয়াবহ বিপর্যয় ডেকে এনেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। দেশটিতে নতুন করে আরও ৯ শতাধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। এখন পর্যন্ত লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে ব্রাজিলেই আক্রান্ত এবং মৃত্যু সবচেয়ে বেশি।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার নতুন করে আরও ৯১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছে ৭৮ হাজার ৭৭২ জন।

এদিকে, দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে আরও ২৮ হাজার ৫৩২ জন। ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ৭৫ হাজারের বেশি।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ৭৫ হাজার ২৪৬। এর মধ্যে মারা গেছে ৭৮ হাজার ৮১৭ জন। দেশটিতে ইতোমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১৩ লাখ ৬৬ হাজার ৭৭৫ জন।

ব্রাজিলে বর্তমানে করোনার অ্যাক্টিভ কেস ৬ লাখ ২৯ হাজার ৬৫৪টি। এছাড়া আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে ৮ হাজার ৩১৮ জন। দেশটিতে কঠোর পদক্ষেপের অভাবে করোনা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করছে বলে অভিযোগ বিশেষজ্ঞদের।

প্রথম থেকেই করোনার বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়নি বোলসোনারো সরকার। ফলে পরিস্থিতি দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে। এদিকে দেশটির প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারপরও দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তার তেমন মাথাব্যথা নেই।

বরং, করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে থাকতে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন এই প্রেসিডেন্ট। সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের একজন ব্যক্তির এমন আচরণ একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়।

পাঠকের মন্তব্য