তাদের ‘জিহাদ’ শুরু আগস্টে

করোনার জন্য চলচ্চিত্রের শুটিং বেশ কিছুদিন বন্ধ ছিলো। তবে এখন শর্ত সাপেক্ষে শুরু হয়েছে আবার শুটিং। সম্প্রতি পরিচালক সমিতিতে এই তরুণ নির্মাতা তার প্রথম চলচ্চিত্র ‘জিহাদ’ এর নাম নিবন্ধিত করেছেন। চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন আফফান মিতুল। তবে, তার বিপরীতে কে অভিনয় করবেন, তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে হাত পাকিয়ে সাজ্জাদ খান ‘জিহাদ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখতে যাচ্ছেন নির্মাতা হিসেবে। নতুন সিনেমা নিয়ে সাজ্জাদ খান বলেন, অনেক দিন ধরেই ব্যতিক্রমী একটা গল্প ভাবছিলাম। অবশেষে প্রজেক্টটা আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। ২০ আগস্ট থেকে এই সিনেমার শুটিং করার পরিকল্পনা রয়েছে।

আগস্টের শেষের দিকে শুরু হবে চলচ্চিত্রটির শুটিং। এ ব্যাপারে আফফান মিতুল বলেন, কলেজ পড়ুয়া শান্ত-ভদ্র ছেলেটি হঠাৎ বিপথে যায়। ব্যস, এর বাইরে কিছু বলার পারমিশন নেই। গল্পের পদে পদে আছে টুইস্ট। পুরো চলচ্চিত্রটি না দেখা পর্যন্ত কেউ বলতে পারবেন না শেষে কি হচ্ছে? আমি শুধু চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করবো বলে চুল, দাড়ি-গোঁফ কাটছি না ৩ মাস ধরে, এই লুকেই থাকতে হবে আরও ৩ মাস। মোট ৬ মাসের জন্য লুকসেট করেছি শুধুমাত্র চলচ্চিত্রের প্রতি ভালোবাসা থেকে।

আফফান মিতুল শেষ করেছেন ‘নিশ্চুপ ভালোবাসা’, ‘গন্তব্য’, ‘আদম’, ‘কাকতাড়ুয়া’ চলচ্চিত্রের শুটিং। চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন রফিকুল ইসলাম পথিকের ‘ঊদয়স্ত’, আসাদুজ্জামান আশুর ‘পদদর্পণ’, আল আমিন এইচ রুবেলের ‘ক্রীড়াভূমি’, আলাউদ্দিন সাজুর ‘সব সুখ তোর জন্য’, সায়মন তারিকের ‘স্বপ্নের ফেরিওয়ালা’ ও ‘মিস রিপোর্টার’, রাশেদ রেহমানের ‘আজিরন বেওয়া’, কিশোর রাব্বানীর ‘হাই টেম্পার’, সবুজ খানের ‘রজকিনী চণ্ডিদাস’ এবং রবিউল হাসান সোহেলের ‘জন্মদাতা’ চলচ্চিত্রগুলোর প্রধান চরিত্রে।
 

পাঠকের মন্তব্য