কৃষকের ধান কেটে দিল ছাত্রলীগ নেতা আরিফ

করোনা ভাইরাস যখন সারাদেশে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ঠিক তখনই ভালো ধানের ফলনে হাসি ফুটেছে নীলফামারী সদরের কৃষকদের মুখে। কিন্তু করোনার কারণে ধান কাটার শ্রমিক সংকট দেখা দেয়। তখনি নীলফামারী জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. আরিফ ইসলামের নেতৃত্বে সংগঠনের একঝাঁক তরুণ হাতে কাস্তে আর কোমরে গামছা বেঁধে মুখে মাস্ক পড়ে ধান কাটতে নেমে যান মাঠে। উত্তপ্ত রোদে এক একর জমি থেকে ধান কেটে দিয়ে কৃষকের উঠানে মাড়াইয়ের কাজ শেষে গোলায় তুলে দেন তারা।

এদিকে দেশের ক্রান্তিলগ্নে ছাত্রলীগের কাছ থেকে বিনা পয়সায় এমন স্বেচ্ছাশ্রম পেয়ে আবেগ আপ্লুত কৃষকরা। হঠাৎ বৈশাখী ঝড়-বৃষ্টিতে জমির ধান নুয়ে পড়ায় দিশেহারা হয়ে উঠেন তারা। শ্রমিক ও আর্থিক সংকটময় পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাদের পাশে এগিয়ে আসায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ ছাত্রলীগের নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন নীলফামারীর কৃষকরা।  

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. আরিফ ইসলাম জানায়, প্রান্তিক মানুষের হাসি মুখ দেখার জন্যই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাত-দিন পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তার স্বপ্নের ফেরিওয়ালা হয়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা দেশের সংকট মোকাবিলায় সব সময়ই কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া কৃষকের সোনালী হাসি যেন মলিন না হয় তার জন্য কাজ করছে ছাত্রলীগ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মো: তুহিন ইসলাম চয়ন রায়, সাবু ইসলাম, শাহিন ইসলাম, মারুফ ইসলাম, মো. হানিফ ইসলাম, রকিব ইসলাম, আলামিন হোসেন, সুমন ইসলাম প্রমুখ।

এশিয়ামেইল২৪/আর

পাঠকের মন্তব্য